BN/Prabhupada 0015 - আমি এই দেহ নই

From Vanipedia
Jump to: navigation, search
Go-previous.png Previous Page - Video 0014
Next Page - Video 0016 Go-next.png

আমি এই দেহ নই
- Prabhupāda 0015


Lecture on BG 9.34 -- New York, December 26, 1966

আত্মার উপস্থিতি তে ছয়টি লক্ষণ প্রদর্শিত হয়। বৃদ্ধি হওয়া আবশ্যক। যখন আত্মা শরীর থেকে বেরিয়ে যায় তখন আর কোনো বৃদ্ধি হয় না। যদি বাচ্চা মৃত জন্ম হয় তাহলে তার কোনো বৃদ্ধি হবে না। তার মা-বাবা বলবে এটা এখন অনর্থক, ফেলে দাও এটাকে। সুতরাং একইভাবে কৃষ্ণ অর্জুন কে প্রথম উদাহরণ দিয়েছিল, "এরকম ভেবো না যে আত্মারূপি স্পুলিঙ্গ যেটা ভিতরে আছে, যার জন্যে শরীর এর বৃদ্ধি হচ্ছে, শিশুকাল থেকে যৌবনকাল, যৌবন্কাল থেকে বৃদ্ধাবস্থা। সুতরাং যখন শরীর অকেজো হয়ে যায়, আত্মা শরীর ত্যাগ করে দেয়। " বাসাংসী জির্নানি যথা বিহায় (ভা.গী.২.২২) . যেরকম আমরা পুরানো বস্ত্র ছেড়ে নতুন বস্ত্র ধারণ করি, সেই রকম করে আমরা নতুন শরীর গ্রহন করি। আর আমরা আমাদের নিজের ইচ্ছাতে শরীর গ্রহন করি না। শরীর গ্রহন প্রকৃতির নিয়মের দ্বারা হয়ে থাকে। শরীর গ্রহন প্রকৃতির নিয়মের দ্বারা হয়ে থাকে। আমরা মৃত্যুর সময় বলতে পারি না কিন্তু চিন্তা করতে পারি। আমি বলতে চাই যে, শরীর গ্রহনের স্বাধীনতা আমাদের আছে। যাং যাং ব্যপি স্মরন লোকে ত্যজতন্তে কলেবরম (ভা.গী.৮.৬) মৃত্যুর সময় আপনার মানসিকতা , যেমন আপনি চিন্তা করবেন তেমন শরীর পাবেন। সুতরাং বুদ্ধিমান ব্যক্তি, তাকে বোঝা উচিত যে আমি শরীর নই। প্রথমত আমি শরীর নই। তখন সেই বুঝবে যে আমার কর্তব্য কি। আত্মার কর্তব্য কি ? তার কর্তব্য ভাগবত গীতাতে লেখা আছে। নবম অধ্যায়ের শেষ শ্লোকে লেখে আছে -মনন্মা-ভাবো (ভা.গী.৯.৩৪) আপনি কিছু চিন্তা করছেন। আমরা সবাই কিছু না কিছু ভাবছি। কিছু না ভেবে একমুহুর্ত আপনারা থাকতে পারবেন না। এটা সম্ভব নয়। এটা আমাদের কর্তব্য। তুমি কৃষ্ণকে ভাবো। তুমি কৃষ্ণকে ভাবো। তোমাকে কিছু ভাবতে হবে। যদি তুমি কৃষ্ণকে ভাবো তো কি ক্ষতি আছে ? কৃষ্ণের ক্রিয়াকলাপ, অনেক সাহিত্য এবং অনেক কিছু আছে। কৃষ্ণ এইখানে এসেছিলেন। আমাদের কাছে অনেক বই আছে। তুমি যদি কৃষ্ণ কে ভাবতে চাও তো আমাদের কাছে অনেক গ্রন্থ আছে। সেগুলি তুমি যদি ২৪ ঘন্টা পড়ো পুরো জীবনে তা শেষ হবে না। কৃষ্ণকে ভাবার অনেক সাধন আছে। কৃষ্ণ কে চিন্তা করো -মন্মনা ভাবো। আমি তোমাকে ভাবতে পারি। যেমন এক মানুষ নিজের স্বামীর সেবা করে। সে সব সময়ে স্বামীর কথা ভাবে। ও আমাকে নটায় যেতে হবে নাহলে সে দুখঃ পাবে। সে কোনো কারণের জন্যে এমন ভাবছে। এরকম ভাবনা চলবে না। সে জন্য তিনি বলেন - ভাবো মদ ভক্ত। (ভা.গী.৯.৩৪) তুমি শুধু আমাকে ভালোবেসে চিন্তা কর। যখন মাস্টার, যখন, আমি বলতে চাচ্ছি, যখন সেবক স্বামী কে ভাবে ,সেখানে কোনো ভালবাসা নাই, তিনি পাউন্ড-শিলিং-পয়সার জন্য চিন্তা করছেন। কারন "যদি আমি কার্যালয় নয়টায় না যাই, যদি লেট হয় , আমি দুই ডলার পাবো না।" সুতরাং সে এইসব ভাবছে , স্বামী কে ভাবছে না, সে পাউন্ড-শিলিং-পয়সার কথা ভাবছে । এমন ভাবনা তোমাকে রক্ষা করবে না। এইজন্যে তিনি বলেন - ভাবো মদ ভক্ত। "তুমি শুধু আমার ভক্ত হও। তাহলে আমার প্রতি তোমার ভাবনা ঠিক হবে। " এবং ভক্তি কি? -মদ ভক্ত। ভক্তিমূলক ... ভক্তি মানে সেবা। তুমি ভগবানের কোনো সেবা করো- মদ-যাজী (ভা.গী.৯.৩৪) যেমন আমরা এইখানে সব সময় সেবায় নিযুক্ত। যখন আপনি আসবেন আমাদের কোনো সেবা তে ব্যস্ত পাবেন। সুতরাং আমরা কোনো কাজ তৈরী করে নিচ্ছি। কৃষ্ণকে ভাববার জন্যে।