BN/Prabhupada 0122 - এই বদমাশরা মনে করে, "আমি এই শরীর।"

From Vanipedia
Jump to: navigation, search
Go-previous.png Previous Page - Video 0121
Next Page - Video 0123 Go-next.png

এই বদমাশরা মনে করে, "আমি এই শরীর।"
- Prabhupāda 0122


Morning Walk At Cheviot Hills Golf Course -- May 17, 1973, Los Angeles

প্রভুপাদঃ কৃষ্ণ বলেছেন, "আপনি সম্পূর্ণরূপে আত্মসমর্পণ করুন। আমি আপনাকে পূর্ণ সুরক্ষা দেব" অহং ত্বাম সর্ব পাপেভ্য মোক্ষ্যয়স্বামি (ভ.গী ১৮.৬৬) তিনি আপনাকে পূর্ণ বুদ্ধি দেবেন। (বিরতি) যেটা আমাদের মহান সাফল্য হবে যখন বৈজ্ঞানিক বিশ্ব এটা স্বীকার করবে। তাদের সহজভাবে স্বীকার করতে দিন তারপর আমাদের কৃষ্ণ ভাবনামৃত আন্দোলন মহান সাফল্য পাবে। আপনি কেবল স্বীকার করেন, "হ্যাঁ, ভগবান এবং রহস্যময় শক্তি আছে।" তারপর আমাদের আন্দোলন খুব সফল হবে। এবং এটি একটি সত্য। কেবল অর্থহীনতার মধ্যে একটি অযৌক্তিক কথা বলা, যেটা খুব একটি বড় ক্রেডিট নয়। অন্ধা যথান্ধৈরুপনীয়মানা (শ্রী.ভা. ৭.৫.৩১)একজন অন্ধ ব্যক্তি অন্য অন্ধ লোককে নেতৃত্ব দিচ্ছে। এই ধরনের কি মূল্য আছে? তারা সবাই অন্ধ। এবং যতদিন পর্যন্ত একজন অন্ধ ও কুৎসিত থাকে, সে ভগবানকে গ্রহণ করে না। এটা হচ্ছে পরীক্ষা। যখনই আমরা দেখি যে তিনি ভগবানকে গ্রহণ করেন নি, তিনি অন্ধ, হতভাগা, বোকা, যাই হোক না কেন আপনি কল করতে পারেন। সে, যাই হোক না কেন, এটি মণজুর করুন। সে একটা হতভাগা। এই নীতিতে আমরা এমন অনেক বড়, বড় রসায়নবিদ, দার্শনিককে চ্যালেঞ্জ করতে পারি, যারা আমাদের কাছে আসে। আমরা বলি, "আপনি রাক্ষস।" অন্য রসায়নবিদ এসেছেন, আপনি তাকে নিয়েছেন, ভারতীয়?

স্বরূপ দমোদরা: এইচএম চৌরি (?)

প্রভুপাদঃ তাই আমি তাকে বলেছিলাম যে "তুমি একজন রাক্ষস ।" কিন্তু সে রাগ করলো না। সে স্বীকার করেছিল এবং তার সমস্ত যুক্তি প্রত্যাখ্যাত হয়েছিল। সম্ভবত আপনি মনে রাখবেন।

সরূপ দামোদরঃ হ্যাঁ, আসলে, তিনি বলছিলেন যে "কৃষ্ণ আমাকে সব পদ্ধতি, পদক্ষেপগুলি দেয়নি, কীভাবে পরীক্ষা নিরীক্ষা করবেন।" যেটা ছিল... তিনি এইরকম বলেছিলেন।

প্রভুপাদ: হ্যাঁ। কেন আমি তোমাকে দেব? আপনি একটি পাগল, আপনি কৃষ্ণের বিরুদ্ধে, কেন কৃষ্ণ আপনাকে সুবিধা দেবে? আপনি যদি কৃষ্ণের বিরুদ্ধে থাকেন এবং আপনি কৃষ্ণ ছাড়া ক্রেডিট চান, এটি সম্ভব নয়। আপনাকে প্রথ্মে বিনয়ী হতে হবে। তারপর কৃষ্ণ আপনাকে সব সুবিধা প্রদান করবে। ঠিক যেমন আমরা কোনো রসায়নবিদ, কোন বিজ্ঞানী, কোন দার্শনিকের মুখোমুখি হতে ভয় পাই না। কেন? কৃষ্ণের শক্তি, আমরা বিশ্বাস করি যে "কৃষ্ণ আছে। যখন আমি তার সাথে কথা বলব, কৃষ্ণ আমাকে বুদ্ধি দেবে। " এই মূলসূত্র। অন্যথায়, যোগ্যতা থেকে, মান থেকে, তারা খুব যোগ্যতাসম্পন্ন হয়। আমরা তাদের আগে সাধারন মানুষ। কিন্তু আমরা কিভাবে তাদের চ্যালেঞ্জ করব? কারণ আমরা জানি। যেমন একটি ছোট শিশু সে একজন বড় মানুষকে চ্যালেঞ্জ করতে পারেন, কারণ তিনি জানেন, "আমার বাবা আছে।" তিনি পিতার হাত ধরছেন, এবং তিনি নিশ্চিত যে "কেউ আমাকে কিছুই করতে পারবে না।"

সরূপ দামোদরঃ শ্রীল প্রভুপাদ, আমি নিশ্চিত করতে চাই তদ অপি অফলাতম যতঃএর অর্থ ।

প্রভুপাদঃ তদ অপি অফলাতম যতঃ।

সরূপ দামোদরঃ তেষাম আত্মভি মনিনাং, বালকানং অনাশ্রিত্য

প্রভুপাদঃ তেষাম আত্মভিমান..., বালকানং অনাশ্রিত্য গোবিন্দ চরণে দেবায়ম।

সরূপ দামোদরঃ "তার জন্য মানুষ্য জীবন নষ্ট হয়ে যায় ..."

প্রভুপাদঃ হ্যাঁ " কে কৃষ্ণভাবনামৃত আন্দোলন বুঝতে চেষ্টা করবে না। শুধু তিনি পশুর মত মারা যায়। এখানেই শেষ। শুধু বিড়াল এবং কুকুরের মত, তারাও জন্ম নেয়, তারা খাবে, ঘুমাবে, ছেলেমেয়েদের জন্ম দেবে এবং মারা যাবে। মানুষের জীবন এমনই।

সরূপ দামোদরঃ জাতা মানে প্রজাতি? জাতা?

প্রভুপাদঃ জাতা। জাতা মানে জন্ম। আফলাতম যতম। বৃথা। তিনি যদি গোবিন্দ-চরন গ্রহণ না করেন তবে মানুষের জীবন অসম্পূর্ণ হয়ে ওঠে। গবিন্দম আদি পুরুষমঃ তমোহম ভজামি।

যদি তিনি বিশ্বাস না করেন যে, "আমি পরম পুরুষ ভগবান গোবিন্দের পূজা করি," তারপর তিনি নষ্ট হয়ে গেছেন। এখানেই শেষ। তার জীবন নষ্ট হয়ে গেছে।

সরূপ দামোদরঃ আত্মভিমনিনাম মানে...

প্রভুপাদঃ আত্ম, দেহাত্ম-মনিনাম।

সরূপ দামোদরঃ তাই যারা স্ব-কেন্দ্রিক...

প্রভুপাদঃ আমি এই শরীর।" নিজে? তাদের কাছে নিজের কোন তথ্য নেই। এই হতভাগারীর। তারা ভাবে, আমি এই শরীর।" আত্ম মানে শরীর, আত্ম মানে নিজে, আত্ম মানে মন। সুতরাং আত্মভিমানি মানে জীবনের শারিরীক ধারনা। বালাকা। বালাকা মানে বোকা, শিশু, বালকা। আত্মভিমনিনাম ,বালাকানাম। যারা জীবনের শারীরিক ধারণার অধীন, তারা শিশু, বোকা, বা পশুর মত হয়।

সরূপ দামোদরঃ সুতরাং আমি পরিকল্পনা করেছি পুনর্জন্মের নীতি ব্যাখ্যা করার এই শ্লোকের দ্বারা।

প্রভুপাদঃ হ্যাঁ, পুনর্জন্ম। ব্রাহ্মভি ব্রাহ্মভি মানে পুনর্জন্ম, একটি শরীর থেকে অন্য ভ্রাম্যমান। ঠিক যেমন আমি এখানে আছি। আমি এই শরীর পেয়েছি, একটি পোষাক, আচ্ছাদন। এবং যখন আমি ভারত যাই, এটা প্রয়োজন হয় না। সুতরাং তারা গ্রহণ করে এইরকম যে, শরীরের বিবর্তিত হয়েছে। কিন্তু না. এখানে, কিছু শর্তের অধীনে, আমি এই পোষাক গ্রহণ করেছি। অন্য জায়গায়, নির্দিষ্ট অবস্থার অধীনে, আমি অন্য পোষাক গ্রহণ করেছি। তাই আমি গুরুত্বপূর্ণ, এই পোষাক নয়। কিন্তু এই হতভাগারা শুধুমাত্র পোষাকের অধ্যয়ন করে। এটাকে বলে আত্মভিমানাম, পোশাক, শরীরের বিবেচনা, বালাকানাম।